ঢাকা, ||

ইন্দুরকানীতে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ


ইন্দুরকানী

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০২০

  • পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে মায়ের নানা বাড়ি বেড়াতে এসে তারিফ (৬) নামের এক শিশুর করুন মৃত্যু হয়েছে। তবে পানি থেকে উদ্ধারের পরে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশুটি মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবারের দাবি।  মঙ্গলবার দুপুর দিকে বাড়ির সামনে খেলা করতে গিয়ে ইন্দুরকানী খালে তারিফ তালুকদার (৬) নামে এক শিশু ডুবে যায়।

স্থানীয়ভাবে জানা যায়, তারিফ বাবা মায়ের সাথে ঢাকায় বসবাস করে। ঈদের ছুটিতে পরিবারের সদস্যেদের সাথে ইন্দুরকানীতে মায়ের নানা বাড়ি বেড়াতে আসে দুপুরে খেলতে যেয়ে পানিতে পড়ে যায় তারিফ।
হঠাৎ খোজ পরে তারিফকে অনেক খুজাখুজির পরে তাকে উদ্ধার করে ইন্দুরকানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কোন ডাক্তার ছিলনা। নাইট র্গাড ও দারোয়ান রুগির স্বজনদের অহেতুক বসিয়ে রাখেন। শুধু সময় পার হতে দেখে রুগীর স্বজনরা তাদের কাছে ডাক্তারে কথা জানতে চাইলে হাসপাতালের কর্মচারীরা রুগীর স্বজনদের উপরে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। চরম বাকবিতান্ডতার মধ্যে রুগী নিয়ে পিরোজপুর জেলা হাসপালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রুগীকে মৃত্যু ঘোষনা করেন।
তারিফ তালুকদার গাজীপুর জেলার মাহবুব তালুকদারের ছেলে। সে মায়ের সাথে তার মায়ের নানা বাড়ি বেড়াতে আসচ্ছিল।

এইদিকে ইন্দুরকানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রুগীর স্বজনদের বিক্ষোভের ফলে উত্তেজনা থামাতে ইন্দুরকানী থানা পুলিশ আসে এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার হোসাইন মুহাম্মাদ আল মুজাহিদ উপস্থিত হয়ে ঘটনার সুষ্ঠতদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিচারের আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন। তিনি এ ব্যাপরে পিরোজপুরের জেলা প্রসাশক ও জেলা সিভিল র্সাজনের সাথে কথা বলেন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার আমিন উল ইসলাম বলেন, আমি হাসপাতালে ছিলাম না । তবে পানিতে পড়া শিশুটি হাসপাতালে এনেছিলো আমি শুনেছি । কর্তব্যরত চিকিৎসকরা দায়িত্ব অবহেলা করলে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।

ইন্দুরকানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬৫ জনের মত স্টাফ রয়েছে কিন্তু বর্তমানে একজন ডাক্তার থাকলেও তিনি সবসময় উপস্থিত থাকেননা বলে স্থানীয় বাসিন্দারা জানান। এ কারনে উপজেলায় প্রায় এক লক্ষ জনগনের চিকিৎসায় চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

Top