ঢাকা, ||

আয়ারল্যান্ডে একসাথে বরিশালবাসীর পথচলা শুরু


আন্তর্জাতিক

প্রকাশিত: ৪:৫০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৯

রাকিবুল ইসলাম রাকিব:একসাথে পথচলা শুরু হল বৃহত্তর বরিশাল পরিবারের। ইউরোপের দ্বীপরাস্ট্র আয়ারল্যান্ডে বাংলাদেশীদের মধ্যে বৃহত্তর বরিশাল বিভাগের লোকজনই বেশি। অনেক চেষ্টার পর অবশেষে একই ছাদের নিচে একই পরিবারের সবাই। কিছুক্ষনের জন্য মনে হল এটাও আমার প্রানের বাংলাদেশের কোন এক অংশ । আত্মপ্রকাশ ঘটল আয়ারল্যান্ডস্থ বৃহত্তম বরিশাল পরিবার সংগঠন এর।

বুধবার ডাবলিনের এরোমা স্পাইসে সামসুল হকের সভাপতিত্বে ও মোঃ জাকির হোসেনের কোরআন তেলোয়াতের মাধ্যমে বিকাল তিনটায় এ অনুষ্ঠানে বৃহত্তর বরিশাল পরিবারকে কিভাবে আরো সু- সংগঠিত করা যায় এটিই ছিল মূখ্য আলোচনার বিষয় ।

আলোচনা সভায় অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও আয়ারল্যান্ড প্রবাসী জাহিদ মোমিন চৌধুরী বলেন- আমাদের অঞ্চলের লোক বেশি আয়ারল্যান্ডে, তারপরও আমাদের ভিতর সবার সাথে সেরকম বন্ধন নেই, এটা হতাশাজনক। আমাদের ভিতর সেতুবন্ধন তৈরীর লক্ষ্যেই বৃহত্তর বরিশাল পরিবার। জাকির হোসেন বলেন, আমাদের যার যা অভিজ্ঞতা আছে, তা এ সংগঠনকে দিয়ে শক্তিশালী করতে হবে। এটা সম্পূর্ন একটা অরাজনৈতিক সংগঠন হবে। এখানে আমরা সবাই একটা পরিবার। আমাদের ভিতর যে দেশপ্রেম আছে তা আজ প্রমান হলো। আমাদের এ সম্পর্ক অবশ্যই অটুট থাকবে।

বক্তব্যের এক পর্যায়ে মো: মোস্তফা বলেন- আমরা যেন অন্য অঞ্চলের লোকদের খাট করে না দেখি। সব অঞ্চলের লোক আমাদের কাছে সম্মানিত। আমরা সবাই মিলেই বাংলাদেশী।
এছাড়া বক্তব্য রাখেন আঃ রহমান, ফারুক সরেয়ার, শাহিন রেজা, জাকির, তুহিন গাজী, আব্দুল লতিফ, জাকির বুলবুল, আরিফ, নান্টু রয়, সাঈদ, মোঃ রফিক, টিটু খন্দকার প্রমূখ। সবার বক্তব্যে একটি কথাই বেশি উচ্চারিত হয়েছে- ‘মোরা বরিশাইল্লা, মোরা সুখে, দুখে আজ থেকে এক পরিবার।’

শেষে সভাপতির বক্তব্যে সামসুল হক বলেন, একজনের মতের সাথে আরেকজনের মতের অমিল থাকতেই পারে, তাই বলে কারো ভিতর যেন সম্পর্কের অবনতি না ঘটে সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। কোন সমস্যা হলে আমরা আলোচনা করে তা সমাধান করবো। হাসিমুখে এ সংগঠনের জন্য সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
পুরো অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন- জাহিদুল ইসলাম ও মোঃ জাকির হোসেন। অনুষ্ঠান শেষে সবাই একসাথে রাতের খাবার ও একে অপরের মাঝে মিস্টি বিতরন করেন।

Top