ঢাকা, ||

ইন্দুরকানী উপজেলার ১৭ তম জন্মদিন আজ


ইন্দুরকানী

প্রকাশিত: ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০১৯

বিশেষ প্রতিনিধি:

ইন্দুরকানী উপজেলার ১৭ তম জন্মদিন আজ। ইন্দুরকানী থানা থেকে উপজেলা ও জিয়ানগর নামকরণের ১৭ বছর আজ। এ উপজেলা পিরোজপুর জেলার সদর উপজেলার সাথে একিভূত ছিল। ৪ দলীয় জোট সরকারের আমলে ২০০২ সালের ২৭ মার্চ ন্যাশনাল ইমিপ্লিমেন্টেশন কমিটি ফর অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ রিকন্সট্রাকশন অ্যান্ড রিফর্ম (নিকার) কমিটির ৮৭ তম বৈঠকে পিরোজপুরের ইন্দুরকানী থানাকে “জিয়ানগর” উপজেলা নামে নাম করণের প্রস্তাব আনা হয়। এরপর ২০০২ সালের ১৭ এপ্রিল তৎকালীন রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে পিরোজপুর সদর উপজেলার পত্তাশী, পাড়েরহাট ও বালিপাড়া এ ৩টি ইউনিয়নের ৯২.৫৫ বর্গ কি.মি. আয়তন নিয়ে জিয়ানগর উপজেলা নামে একটি নতুন প্রশাসনিক উপজেলা গঠন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এই আদেশের বলে ২০০২ সালের ২১ এপ্রিল তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া স্থানীয় জনগনের দাবির প্রেক্ষিতে ইন্দুরকানী সফর করে ইন্দুরকানী কলেজ মাঠে এক জনসভায় ইন্দুরকানী থানাকে জিয়ানগর উপজেলা নামে উদ্বোধন করেন। পরবর্তীতে, ২০১৭ সালের ৯ জানুয়ারী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার) এর ১১৩ তম সভায় পিরোজপুরের ৭ম উপজেলা জিয়ানগরের নাম পরিবর্তন করে পূর্বের ইন্দুরকানী থানার নামে নাম করনের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয় এবং এর ঠিক একমাস পরে (৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ (উপজেলা-১ শাখা) এর এক প্রজ্ঞাপন(গেজেট) জারীর মাধ্যমে নাম পরিবর্তনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন।

Top