ঢাকা, ||

বহুদিন পর চোখ ভিজে যাওয়ার গল্প যদি একদিন

বিনোদন সংবাদদাতা: গত এক সপ্তাহে ছবিটির প্রচারণার মাঠে ছিলেন নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ, অভিনেতা তাহসান, তাসকিন, রাইসাসহ প্রায় সবাই। শুধু অনুপস্থিত ছিলেন কলকাতার শ্রাবন্তী। সন্দেহ ছিল, শেষ পর্যন্ত এই প্রচারণা মাঠে তাকে পাওয়া যাবে তো! সেই সন্দেহের অবসান ঘটিয়ে ঠিকই কলকাতা থেকে ঢাকায় হাজির হলেন টলিউডের অন্যতম এই নায়িকা। নির্মাতা রাজ জানান, ভিসা ও টিকিট জটিলতার কারণে তার আসতে বিলম্ব হয়েছে। আজ (৮ মার্চ) বেলা ১২টার দিকে শ্রাবন্তী ঢাকায় পৌঁছেছেন। জানা গেছে, ঢাকায় এসেই ‘যদি একদিন’ ছবির প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন এই নায়িকা। শুরুতেই ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আরটিভিতে সময় দিয়েছেন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তিনি প্রস্তুত হচ্ছিলেন ঢাকার বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে যাওয়ার। মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ছবিটির প্রমোশনে অংশ নেওয়ার জন্য আমাদের চেয়েও বেশি অস্থির হয়ে ছিলেন শ্রাবন্তী। অনেকটা যুদ্ধ করেই তিনি আজ ঢাকায় পৌঁছেছেন। আমরা পুরো টিম তাকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত। এখন আমরা আরটিভিতে আছি। এরপর পুরো টিম ঢাকার বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে ঘুরবো। দর্শকদের কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া জানবো। কালও (৯ মার্চ) একই পরিকল্পনা আছে আমাদের।’ জানা গেছে, তাহসান-শ্রাবন্তী-রাজ-তাসকিন-রাইসারা সন্ধ্যায় যাবেন রাজধানীর সীমান্ত সম্ভারে অবস্থিত নতুন স্টার সিনেপ্লেক্সে। এছাড়া তার আগে ও পরে বলাকা আর শ্যামলী হলেও ঢুঁ মারবেন। এদিকে ছবিটির প্রথম শো দেখার পর বেশিরভাগ দর্শক প্রতিক্রিয়ায় পাওয়া গেছে চোখ ভিজে ওঠার গল্প। দর্শকরা বলছেন, বহুদিন পর দেশের কোনও ছবি দেখে নিজের অজান্তেই তাদের চোখ ভিজেছে। ছবিটি দেখার পর যেমন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়াসহ অনেকেই। ‘দেবী’ ছবির অন্যতম সফল এই মুখ মাকে নিয়ে ‘যদি একদিন’ দেখার পর তার প্রতিক্রিয়া দেন এভাবে, ‌‌‘‘ছবিটি দেখতে দেখতে কখন জানি চোখ ভিজে উঠলো, বাবাকে খুব মিস করতে শুরু করলাম! টেরই পাইনি। ছবিটি চলার সময় আমার পাশে বসা মা জানতে চাইলো, ‘বাবাকে মিস করছো?’ আমার মা অনেক বোকা, কিন্তু কীভাবে জানি মা সব বুঝে যায়! আসলেই আমি তখন টলমলে চোখ নিয়ে ঘোলা পর্দাটার দিকে তাকিয়ে ছিলাম। পর্দায় তখন তাহসান ভাই আর রাইসা। বাবা আর মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছে তারা। আর আমি তখন দেখছিলাম আমার বাবা ও নিজেকে।’’ ফারিয়া ছবিটির কলাকুশলী প্রসঙ্গে আরও বলেন, ‘‘রাজ ভাই (পরিচালক), আপনার নির্মাণ প্রসঙ্গে আমি বেশি প্রশংসা করলে মানুষ স্বজনপ্রীতি বলবে। তাই কিছু বলবো না! তাহসান ভাইয়া, আপনি তো জানেন আমি আপনার অনেক বড় ভক্ত। এবং এই ছবিটি দেখার পর আপনাকে নিয়ে আরও গর্ব হচ্ছে। আমার মা ৪০ বছর পর সিনেমা হলে গিয়েছিল ‘দেবী’ দেখতে, তারপর আজকে (৮ মার্চ) আসলো, আপনাকে দেখতে! ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে তাসকিনকে দেখে মুগ্ধ হয়েছি। আবারও সে প্রমাণ করলো তার প্রতিভা। শ্রাবন্তীকে এতো মিষ্টি কলকাতার কোনও সিনেমায়ও লাগেনি! খুবই পরিমিত অভিনয়। খুব সুন্দর! সাবেরী আন্টি (অভিনেত্রী), সব সময়ের মতো আদরে ভরা অভিনয়। নাজমুল ভাই (সিনেমাটোগ্রাফার), খুব সুন্দর, আবারও বললাম!’’ জয়া নিবেদিত বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন মাসুম বাশার, মিলি বাশার, নাজিবা, সুজাত শিমুল, আনন্দ খালেদ, রানী আহাদ, নীলাঞ্জনা নীলা, জি এম শহীদুল প্রমুখ। তাহসান অভিনীত এটাই প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। অন্যদিকে শ্রাবন্তী এর আগে যৌথ প্রযোজনার ছবিতে অভিনয় করলেও ঢালিউডে এটাই তার প্রথম কাজ। ‘যদি একদিন’-এর জন্য গান তৈরি করেছেন হৃদয় খান, ইমরান ও নাভেদ পারভেজ। নির্মাতা রাজের গল্পে ছবিটির চিত্রনাট্য ও সংলাপে সহযোগিতা করেছেন আসাদ জামান। চিত্রগ্রহণে ছিলেন নাজমুল হাসান।
Top