ঢাকা, ||

এমএলএম কোম্পানির নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়া ৩২ প্রতারক আটক

গাজীপুর প্রতিনিধি  গাজীপুরের টঙ্গী মধুমিতা এলাকায় অভিযান চালিয়ে লাইফওয়ে বাংলাদেশ প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি ভুয়া এমএলএম কোম্পানির সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের ৩২ সদস্যকে আটক করেছেন র‌্যাব-১১ সদস্যরা। চক্রের মূল হোতা আলতাবুর রহমানসহ আটকদের টঙ্গী পূর্ব থানায় হস্তান্তর করে মামলা রুজু করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বেলা ১১টা থেকে বিকাল আড়াইটা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় প্রতারণার শিকার ৭৩ ভুক্তভোগীকেও উদ্ধার করা হয়েছে র‌্যাব-১১-এর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, কাউসার নামে এক ভুক্তভোগী যুবক র‌্যাবের কাছে ওই কোম্পানির অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এর ভিত্তিতে র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করে। পরে আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও জব্দকৃত নথিপত্র পর্যালোচনা করা হয়। প্রতারণার শিকার শরীফ, আল আমিনসহ অন্যরা জানান, ওই এমএলএম কোম্পানি মাসিক কমপক্ষে ১৫ হাজার টাকা বেতনের প্রতিশ্রুতি দেয়। তারা তিনটি ভিন্ন প্যাকেজে চাকরিপ্রত্যাশীদের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত গ্রহণ করে। পরে প্রশিক্ষণের নামে কয়েক সপ্তাহ কালক্ষেপণ করে। প্রশিক্ষণার্থী প্রত্যেককে নতুন দুজন সদস্য সংগ্রহের শর্ত প্রদান করে। নতুন সদস্য সংগ্রহ করে দিলে সংগৃহীত টাকার সামান্য কমিশন প্রদান করে। নতুন সদস্য দিতে না পারলে বিভিন্ন কৌশলে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে খালি স্ট্যাম্প এবং আপসনামায় জোর করে সই নিয়ে তাড়িয়ে দেয়। প্রতিবাদ করলে ভাড়াটে লোকদের দ্বারা আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতনও করে থাকে। লাইফওয়ে বাংলাদেশ প্রাইভেট লিমিটেডের ওই কার্যালয় থেকে ৪০টি মোবাইল, একটি ডেস্কটপ, বিপুল পরিমাণ ভুয়া ভর্তি ফরম, নিয়ম ও শর্তাবলি ফরম, পণ্য ক্রয়ের ভাউচার, আপসনামা, অঙ্গীকারনামা, সাপ্তাহিক হিসাব রেজিস্টার, স্পন্সর নোট রেজিস্টার, টাকা জমার রশিদ, স্ট্যাম্প, হাজিরা বই ও পণ্য সরবরাহের চুক্তিপত্র উদ্ধার করা হয়।
Top